Sayem-Lalbagh zone.jpg

সায়েম হোসেন

কিছুদিন আগে একটা অর্ডার ডেলিভারি করছিলাম তুমুল বৃষ্টির মধ্যে।

 

একটু কঠিন হলেও আমার জন্য সবচেয়ে জরুরি ছিল যেভাবেই হোক কাস্টমারকে তার খাবার সময়মতো পৌঁছে দেয়া। কাস্টমার ডেলিভারি পাওয়ার পর তার খুশিটাই সব কষ্টকে মিনিটের মধ্যে সার্থক করে তুলেছিল।

 

বৃস্টি তে কাজ করার সেইদিনের ছবি কিছুদিন আগে ভাইরাল হয় এবং আমাকে আমার বাবা মা, আত্মীয় স্বজন এমনকি ইতালি থেকে আমার এক কাজিনও ফোন দিয়ে বলে, "তুমি তো দেখি foodpanda হিরো!

অনেক খুশি লাগে যখন দেখি আমার কাজকে সবাই সম্মান করে এবং গুরুত্ব দেয়।

ফুডপান্ডা তে কাজ করার আগে আমি বড় ভাইয়ের দোকানে বসতাম। একদিন দেখলাম foodpanda রাইডার নিচ্ছে এবং তারপর ফেব্রুয়ারি মাস থেকে আমি কাজ করে যাচ্ছি রাইডার হিসেবে ।

 

সীমিত পরিশ্রমে নিজের সুবিধা মতো শিফট নিয়ে কাজ করার স্বাধীনতা দিচ্ছে foodpanda।আজ পর্যন্ত কোনদিন কাজের স্বাধীনতা নিয়ে জবাবদিহি করতে হয়নি আমাকে। আমি আমার সুবিধা মতো কাজের শিফট নেই, কাজ করি এবং চলে যাই।

 

আমি যদি ভালো কাজ করি আমাকে ইভ্যালুয়েট করা হয় এবং ব্যাচ ইম্প্রুভমেন্ট হলে আমি আরো বেশি টাকা উপার্জন করার সুযোগ পাই।

অনেক সময় বিভিন্ন কারণে আমাদের একটু দেরি হয়ে যায় আসতে কিন্তু আমরা সবসময় চেষ্টা করি যেভাবেই হোক, গ্রাহককে তাদের খাবার পৌঁছে দিতে। গ্রাহকরা আমাদের পরিস্থিতি বুঝুক এবং একটু ধৈর্যশীল হোক, এটাই আমাদের একমাত্র চাওয়া।"

সায়েম এর মতো সব হিরোদের জন্য ভালোবাসা, যারা প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছেন গ্রাহককে সেরা সেবা দিতে।

Bamboo Rewards Third Cycle_edited.jpg